in

যিশু খ্রিস্টের সমাধি কোথায়?

আজ থেকে দুই হাজার বছর আগে প্রথম শতাব্দিতে যিশু খ্রিস্টের মৃত্যু বিশ্বের সবচেয়ে আলোচিত বিষয়গুলোর একটি। কিন্তু যদি বলা হয়, যিশুর সমাধি কোথায়? তাহলে সকলেই দ্বন্দ্বে পড়ে যান। গসপেল অনুযায়ী রোমানরা তাকে ক্রুসিফাই করে। এরপর তাকে সমাহিত করা হয়েছিল। ইসলাম ধর্মের সকলেই মানেন যে, সমাহিত করার দুদিন পরে মেরি ম্যাগডালেন এবং যিশুর ঘনিষ্ট অনুসারীরা তার সমাধিতে যান। এবং সমাধিটি তারা শূণ্য দেখতে পান।

যিশুর মরদেহ কী হয়েছিল তার সমাধিটাই বা কোথায় তা নিয়ে ইতিহাসবিদদের নানারকম মত রয়েছে।

ম্যাথিউএর গসপেল মতে, যিশুর মরদেহ কয়েকজন অনুসারী গোপনে নিয়ে শুদ্ধভাবে তাকে সমাহিত করে। কিন্তু গসপেলেরই আরেকটি অংশে আবার এ তথ্যকে গুজব বলে উল্লেখ করা হয়।

ইতিহাসবিদদের একটা অংশ বলেন যে, প্রথম শতাব্দীতে যিশুকে ক্রুসিফাই এর পরে খুবই গোপনে তাকে সমাহিত করা হয়েছিল। যিশুর খুব একান্ত অনুসারীর পারিবারিক কবরস্থানেই তাকে কবর দেওয়া হয়েছিল বলে মনে করেন অনেকে।

বিভিন্ন গবেষকরা জানিয়েছেন, যিশুর দাফন প্রক্রিয়াটা ছিল একটু ভিন্নরকম। প্রচলিত অর্থে তাকে কবর দেওয়া হয়নি। তার দেহ কাফনের কাপড় দিয়ে এক বছর ঢেকে রাখা হয়েছিল। এই দাফনে যিশুর অনুসারীরা, মা মেরি, ৪ ভাই সাই্মন, জোসেফ, জুডাস ও জেমস এবং মেরি ম্যাগডালেনও উপস্থিত ছিলেন।

ইতিহাসবিদদের আরেকটি অংশ বলেন, ভাইয়েরা যিশুর দেহ ভালভাবে শুদ্ধ করেন। এরপর একটি লাইমস্টোনের কফিনে (একে ossuary বলা হয় যার অর্থ যে ঘরে বা বাক্সে মৃতজনের হাড় রাখা হয়) রেখে তাকে সমাধিস্থ করেছিলেন । এই ossuaryতে যিশুখৃষ্টের নাম লেখা ছিল। কফিন তাদের পারিবারিক কবরস্থানে (পাথরের) একদম ভিতরের দিকে পুঁতে ফেলা হয়েছিল। কোথায় এই সমাধিক্ষেত্র তা নিয়ে নানাজন নানা কথা বলেন। এরমধ্যে একদল দাবি করেন ১৯৮০ সালে জেরুজালেমে পাওয়া গেছে জিশুর সমাধি।

তাদের দাবি অনুযায়ী, ১৯৮০ সালে জেরুজালেমের ৫ কিলোমিটার দূরে তালপিয়টে  অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্স তৈরির কাজ চলছিল। এক্সপ্লোসিভ দিয়ে পাথর ভাঙ্গা হচ্ছিল সেখানে। ভাঙার একটা পর্যায়ে প্রায় দুই হাজার বছর পুরোন একটি সমাধিক্ষেত্রের প্রবেশ পথ  পাওয়া যায় । সেই অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সের কন্ট্রাক্টরদের চাপে কয়েকজন আর্কিওলজিস্টদের একটি টিম সেখানে পরিদর্শন করেন। দাবি করা হয়, সেই সমাধিই হলো যিশু খ্রিস্টের সনাধি। তবে এ নিশ্চিত কোন তথ্য পাওয়া যায়নি।

This post was created with our nice and easy submission form. Create your post!

What do you think?

Written by Azaher Ali Rajib

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Loading…

0

শচীনকে বাদ দিল মোদি সরকার

জাকির নায়েকের স্কুল বিষয়ক কিছু কথা।