in

শচীনকে বাদ দিল মোদি সরকার

দেশের ক্রীড়াক্ষেত্রে উন্নয়নের জন্য তারকা ক্রীড়াব্যক্তিত্বদের নিয়ে একটি উপদেষ্টা কমিটি গঠন করা হয়েছিল। সেখান থেকেই বাদ পড়তে হলো ভারতের ক্রিকেট ঈশ্বর শচীন টেন্ডুলকারকে। শুধু টেন্ডুলকারই বিশ্বনাথন আনন্দের মতো কিংবদন্তি ক্রীড়ানক্ষত্রদের বাদ দেওয়া হয়েছে অল ইন্ডিয়া স্পোর্টস কাউন্সিল থেকে। এ নিয়ে ভারতের মোদি সরকারের বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

২০১৫ সালে অল ইন্ডিয়া স্পোর্টস কাউন্সিল গঠন করা হয়েছিল তৎকালীন ক্রীড়ামন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়ালের উদ্যোগে। রাজ্যসভার সাংসদ হিসেবে সেই কমিটিতে বিশ্বনাথন আনন্দের সঙ্গে রাখা হয়েছিল মাস্টার ব্লাস্টার টেন্ডুলকারকে। সেই কমিটিতেই এবার শচীন-আনন্দকে বাদ দিয়ে নতুন সদস্য হিসেবে অন্তর্ভূক্ত করে নেওয়া হলো হরভজন সিং, কৃষ্ণমাচারি শ্রীকান্তের মতো ক্রিকেটারদের।

আরও দুজনকে ওই প্যানেল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তারা হলেন, কিংবদন্তি ব্যাটমিন্টন খেলোয়াড় ও কোচ পুলেল্লা গোপিচাঁদ ও ভারতের জাতীয় ফুটবল দলের প্রাক্তন অধিনায়ক বাইচুং ভুটিয়া। নতুন সদস্য হিসেবে যোগ দিয়েছেন- লিম্বা রাম (তিরন্দাজি), পিটি ঊষা (অ্যাথলেটিক্স), বাচেন্দ্রি পাল (পর্বতারোহণ), দীপা মালিক (প্যারা-অ্যাথলিট), অঞ্জলি ভাগাওয়াত (শ্যুটিং), রেনেডি সিং (ফুটবল) এবং যোগেশ্বর দত্ত (কুস্তি)।

টাইমস অফ ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, শচীন-আনন্দের নাম নতুন কমিটিতে রাখার বিষয়ে বিবেচনাই করা হয়নি। কারণ, সংশ্লিষ্ট সংস্থার বৈঠকে দু-জনের উপস্থিতির হার ছিল নগণ্য। তবে ঘটনা যাই হোক না কেন শচীনের মতো মহানক্ষত্রকে কমিটি থেকে বাদ দেওয়ায় মোদি সরকারের বিরুদ্ধে বিতর্কের ঝড় উঠতে শুরু করেছে।

This post was created with our nice and easy submission form. Create your post!

What do you think?

Written by Azaher Ali Rajib

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Loading…

0

আসছে লোমশ দানব ম্যামথ!

যিশু খ্রিস্টের সমাধি কোথায়?