in

২০২০ মাতাবে যে ১০ মোবাইল ফোন।

নতুন বছরে সবারই নজর থাকে নতুন কিছুর দিকে। আর প্রযুক্তিপ্রেমীরা তো রীতিমতো উম্মুখ হয়ে বসে থাকেন নতুন সব ধামাকাদার গ্যাজেটের জন্য। এমন প্রযুক্তিপ্রেমীদের কথা ভেবেই জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানগুলো প্রস্তুতি নিয়েছে অনেক আগেই। নতুন বছরে যারা স্মার্টফোন কেনার অপেক্ষায় আছেন তাদের কথা ভেবে নতুন কিছু আনার ঘোষণা দিয়েছে বিভিন্ন হ্যান্ডসেট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান। এর মধ্য থেকে সেরা ১০ হ্যান্ডসেটের টুকিটাকি এখানে তুলে ধরা হলো।

 

#1 অ্যাপল আইফোন ১২ (Apple iPhone 12)

আইফোন প্রেমীদের জন্য সুখবর। বিশেষ করে যারা কিছুদিন পরপর মোবাইল ফোন পরিবর্তন করে নতুন ফোন ব্যবহার করেন তাদের জন্য সোনায় সোহাগা। এ বছর অ্যাপেল দাম না বাড়িয়ে ৫টি ফাইভ জি ফোন বাজারে ছাড়বে। ৫জি যন্ত্রাংশ ব্যবহারের জন্য প্রতিটা আইফোন তৈরি করতে ৩০ মার্কিন ডলার থেকে ১০০ মার্কিন ডলার বেশি খরচ করতে হবে কোম্পানিকে। উৎপাদনের খরচ বাড়লেও নতুন আইফোনের দাম বাড়বে না বলেই জানানো হয়েছে। আইফোন ১২ এ একটি কাস্টম ব্যাটারি প্রোটেকশন ব্যবহার হবে। 

যা আগের আইফোনের তুলনায় প্রায় ৫০ শতাংশ ছোট। ব্যাটারি প্রোটেকশনের আকার ছোট হওয়ার কারনে ফোনের ভিতরে আগের থেকে বেশি জায়গা পাওয়া যাবে। ফলে নতুন আইফোনে আগের থেকে বড় ব্যাটারি ব্যবহার হতে পারে। এই ফোনগুলোতে ৫.৪ ইঞ্চি, ৬.১ ইঞ্চি আর ৬.৭ ইঞ্চি ডিসপ্লে ব্যবহার হবে। মার্চ মাসে বাজেট সেগমেন্টে নতুন আইফোন লঞ্চ করতে পারে অ্যাপেল।

#2 স্যামসাং গ্যালাক্সি এস ১১ (Samsung Galaxy S11)

এ বছর স্যামসাংয়ের গ্যালাক্সি এস ১১ আসবে মোট পাঁচটি সংস্করণ নিয়ে। তিন ধরনের ডিসপ্লে সাইজ নিয়ে বাজারে আসবে ফোনগুলো। প্রতিটিরই ডিসপ্লে হবে স্পোর্ট কার্ভড-এইজের। গ্যালাক্সি এস ১১ সিরিজের সবচেয়ে ছোট সংস্করণ হবে গ্যালাক্সি এস ১১ ই। এর ডিসপ্লে সাইজ হতে পারে ৬ দশমিক ২ বা ৬ দশমিক ৪ ইঞ্চি। ব্যাটারির শক্তি হবে ৩৭৩০ এমএএইচ। গ্যালাক্সি এস ১১ মডেলে থাকবে ৬ দশমিক ৭ ইঞ্চির ডিসপ্লে। এতে ১০৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা থাকতে পারে। ব্যাটারির শক্তি হবে ৪৩০০ এমএএইচ। সবচেয়ে বড় ডিসপ্লে থাকবে গ্যালাক্সি এস ১১ প্লাস মডেলে। ফোনটির ডিসপ্লে হবে ৬ দশমিক ৯ ইঞ্চি। একটি দুটি সংস্করণে থাকবে ফাইভজি ও এলইটি সাপোর্ট। ফোনগুলোতে প্রসেসর হিসেবে থাকবে এক্সিনোস ৯৮৩০ প্রসেসর। যুক্তরাষ্ট্রে সরবরাহকৃত ফোনগুলোতে থাকবে ড্রাগন ৮৬৫ প্রসেসর।

গ্যালাক্সি এস ১১ মডেলে ১০৮ মেগাপিক্সেলের আইএসওসেল ব্রাইট এইচএমএক্স সেন্সর ব্যবহার করা হচ্ছে না। যদিও ২০১৮ তে এই সেন্সরটি বাজারে এনেছে প্রতিষ্ঠানটি। এর বদলে স্মার্টফোনটিতে ব্যবহার করা হচ্ছে এই প্রযুক্তির আরও উন্নতমানের দ্বিতীয়-প্রজন্মের সেন্সর। ভাবা হচ্ছে এর হয়তো বিশেষ একটি অর্থ রয়েছে। ইতিমধ্যেই সেন্সরটির মূল সংস্করণটি ব্যবহার করা হয়েছে শাওমি স্মার্টফোনে। এক্ষেত্রে গ্যালাক্সি এস ১১-এ এই সেন্সরের ব্যবহার স্যামসাংয়ের জন্য নতুন কিছু হবে না বলেই ধারণা করা হচ্ছে। ফেব্রুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহে সানফ্রান্সিসকোতে গ্যালাক্সি এস ১১ সিরিজের দেখা মিলতে পারে। স্মার্টফোন উন্মোচন অনুষ্ঠানের সম্ভাব্য স্থান হতে পারে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সানফ্রান্সিসকো।

#3 শাওমি এমআই ১০ (Xiaomi Mi 10)

শাওমি-এর পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে, নতুন বছরে Xiaomi Mi 10 নিয়ে হাজির হচ্ছে তারা। আর Qualcomm Snapdragon 865 platform-এর প্রথম ফোনও হতে চলেছে এই ফোনটি। জানুয়ারিতেই চীনের বাজারে চলে আসবে এই স্মার্টফোন। আর তার পরের মাসেই হয়তো বাংলাদেশসহ গোটা বিশ্বে এসে যাবে এই ফোন। এই ফোনে থাকছে 108-megapixel ক্যামেরা।

#4 ওয়ানপ্লাস এইট (OnePlus 8)

২০১৯ জুড়ে স্মার্টফোনের বাজারে দাপট দেখানোর পর ফের নতুন হ্যান্ডসেট লঞ্চ করতে চলেছে ওয়ানপ্লাস। ডিসপ্লে-তে পাঞ্চ হোল ফ্রন্ট ক্যামেরা থাকছে। ডিসপ্লে একটু বাঁকানো ধরনের হবে। আর লুক হবে এক্কেবারে Samsung-এর ফোনের মতোই। মনে করা হচ্ছে যে, লেটেস্ট Qualcomm Snapdragon 865 হার্ডওয়্যার থাকছে এই ফোনে। এ বছর এপ্রিলে লঞ্চ হতে পারে এই ফোন।

#5 ওপো ফাইন্ড এক্স টু (Oppo Find X2)

পপ ক্যামেরা এনে আসলে Oppo Find X স্মার্টফোনটির আধুনিকীকরণের পথে হাঁটছিল Oppo। কিন্তু এখন শোনা যাচ্ছে যে, পরবর্তী স্মার্টফোনটির জন্য এবার আন্ডার ডিসপ্লে ক্যামেরা আনতে চলেছে Oppo। Oppo Find X2 অর্থাৎ নতুন এই স্মার্টফোনে থাকছে Snapdragon 865, যা সংস্থার পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই নিশ্চিত করা হয়েছে।

#6 নোকিয়া ৮.২ (Nokia 8.2 5G)

বাজারে ফাইভজি হ্যান্ডসেট আনতে কিছুদিন আগেই Qualcomm এর সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছিল নোকিয়া। তখনই ঠিক হয়েছিল যে, নোকিয়ার নতুন স্মার্টফোনগুলোতে Qualcomm Snapdragon 7 series-এর হার্ডওয়্যার থাকবে। এত গেল হার্ডওয়্যার আর ইন্টারনেটের ব্যাপার। তবে শোনা যাচ্ছে, নতুন এই Nokia 8.2 5G হ্যান্ডসেটে বেশ কিছু চমকপ্রদ ফিচার্স থাকছে। Snapdragon 765-এর পাশাপাশি আর কী কী ফিচার্স থাকছে তার জন্য আর মাত্র কয়েকটা দিন অপেক্ষা করতে হবে।

#7 স্যামসাংয়ের সেকেন্ড ফোল্ড (Samsung’s Second Fold)

গ্যালাক্সি ফোল্ড এখন বিশ্বের বাজারে সর্বত্রই পাওয়া যাচ্ছে। আর নতুন যে ফোনটি স্যামসাং নিয়ে আসতে চলেছে তা হয়তো আকারে আরও কিছুটা ছোট হতে চলেছে। শোনা যাচ্ছে, এই ফোনের লুক হতে চলেছে এক্কেবারে Moto Razr-এর মতো। ফোনের নাম যে কী হতে চলেছে তা এখনও পরিষ্কার করে জানানো হয়নি স্যামসাংয়ের পক্ষ থেকে। তবে শোনা যাচ্ছে, ফোনের ডিসপ্লে হবে ৬.৭ ইঞ্চির।

#8 অ্যাপল আইফোন এসই ২/ iPhone 9 (Apple iPhone SE 2/iPhone 9)

প্রতি বছরই এই সিরিজের একটি করে ফোন নিয়ে আসে iPhone। আর এবার যে নতুন হ্যান্ডসেট এই সংস্থা নিয়ে আসবে তা হল iPhone 9। এই ফোনের দাম খুব একটা বেশি হবে না বলে শোনা যাচ্ছে। ২০২০ সালের প্রথম দিকেই লঞ্চ হতে চলেছে অ্যাপলের এই নতুন ফোন। বেশি দামের আইফোন বাজারে জাঁকিয়ে ব্যবসা করতে পারছে না। আর সেই কারণেই নতুন ফোনের দাম এক্কেবারে কমিয়েই লঞ্চ করা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

#9 হুয়াওয়ে পি ৪০ (Huawei P40 pro)

২০১৯ সালে হুয়াওয়ের ওপর থেকে রীতিমতো ঝড় বয়ে গেছে। এ বছর তারা নিশ্চিতভাবেই সেটা কাটিয়ে উঠতে চাইবে। বহির্বিশ্বে বিপদে পড়লেও চীনে এখনও বাজার ধরে রেখেছে হুয়াওয়ে। এত কিছুর পরেও নতুন ফোন নিয়ে মার্কেটে লঞ্চ করছে হুয়াওয়ে। তবে নতুন যে ফোনটি বাজারে আনতে চলেছে হুয়াওয়ে, তাতে থাকছে five camera Lecia system। এছাড়াও 64-megapixel মেইন ক্যামেরা রাখারও চিন্তাও রয়েছে এই সংস্থার।

#10 আইটেল এ ২৫ (Itel A25)

আইটেলের এ ২৫ মডেলের ফোনটি এ বছর জানুয়ারিতে লঞ্চ হয়েছে। দক্ষিণ এশিয়ার বাজারে ফোনটি ভালো সাড়া ফেলেছে। ফোনটির ডিসপ্লে ৫ ইঞ্চি। ফ্রন্ট ক্যামেরা ২ মেগা পিক্সেল। আর ব্যাক ক্যামেরা ৫ মেগা পিক্সেল। ১ জিবি র‍্যামের ফোনটিতে স্টোরেজ ১৬ জিবি। একটি কম বাজেটে যারা ফোন কিনতে চান তাদের জন্য এই মডেলটিই হতে পারে সবচেয়ে যুৎসই।

This post was created with our nice and easy submission form. Create your post!

What do you think?

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Loading…

0

আমেরিকার সাবেক প্রেসিডেন্টরা যেসব রাষ্ট্রীয় সুবিধা পান।

২০২০-এ ঝড় তোলার অপেক্ষায় যে ২০ ছবি।