in

১০ বছরের কর ফাঁকি দিয়েছেন ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রায় ১০ বছর ফেডারেল আয়কর ফাঁকি দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। গত ১৫ বছরে তিনি এ কর ফাঁকি দিয়েছেন। বছরগুলোতে উল্লেখযোগ্যভাবে ব্যয় বেশি দেখিয়েছেন তিনি।

প্রেসিডেন্ট হওয়ার পরও ট্রাম্প মাত্র ৭৫০ ডলার ফেডারেল আয়কর দেন। দুই দশকেরও বেশি ট্যাক্সের বিবরণী থেকে তথ্য নিয়ে প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়। আর বছরের পর বছর ট্যাক্স ফাঁকি দেয়া ট্রাম্প এভাবেই তার ব্যবসাকে সমৃদ্ধ করেছেন বলে জানায় পত্রিকাটি।

খবর নিউ ইয়র্ক টাইমসে প্রতিবেদনের তথ্য অনুসারে, ট্রাম্প তার অন্যান্য ব্যবসায় ৪৩৭.৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিশেষ করে তার গলফ কোর্সগুলোতে বিনিয়োগ করে আসছিলেন এবং ব্যবসার বাইরেও নিজের কাছে নগদ অর্থ রেখেছিলেন।

যদিও রবিবার হোয়াইট হাউসে এক বিবৃতিতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প টাইমসের এই অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন। ট্রাম্প বলেন, ‘আমি অনেক ডলার ট্যাক্স দিয়েছি। রাজ্য আয়করেও আমি অনেক দিয়েছি। অভ্যন্তরীণ রাজস্ব পরিষেবা দ্বারা নিরীক্ষণের ব্যাপার না থাকলে আমি করের প্রমাণ প্রকাশ করতে ইচ্ছুক।’

প্রেসিডেন্টের নিরীক্ষা চলাকালীন তার করের রিটার্ন ধরে রাখার কোনো বাধ্যবাধকতা না থাকলেও বছরের পর বছর তিনি এই কাজটি কেন করে আসছেন এমন প্রশ্ন করেন সিএনএনের সাংবাদিক জেরেমি ডায়মন্ড। তবে এই প্রশ্নের জবাব না দিয়ে চিৎকার করতে করতে সাংবাদিক সম্মেলন স্থল থেকে বেরিয়ে যান।

This post was created with our nice and easy submission form. Create your post!

What do you think?

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Loading…

0

এক নতুন খবর দিল আবহাওয়া অধিদপ্তর

করোনায় মারা গেলেন শিল্পপতি হাসান মাহমুদ চৌধুরী